ঢাকা, বাংলাদেশ | বুধবার | ২৮ অক্টবর | ২০২০ | ৫:২৭ pm

×

ধর্ম

মার্চ ২৯, ২০২০, ২:২২ pm

কোন মুসলমান যদি মহামারিতে মারা যান তবে ইসলামের মূলনীতি কী হবে?

Mazharul islam

ছবি -

ইসলামি বিধান অনুযায়ী  মুসলমান মারা গেলে উপস্থিত মুসলিমদের ওপর ওই মৃত ব্যক্তির গোসল, জানাজা ও দাফন করা ফরজে কেফায়া।

তবে কেউ মহামারিতে মারা গেলে মহান রাব্বুল আলামিন আল্লাহ তায়ালা মানুষের ওপর ক ষ্টকর কোনো বিধান চা’পিয়ে দেন না বলে পবিত্র কোরআনে উল্লেখ করে বলেছেন, ‘আল্লাহ তায়ালা কারো ওপর তার ক্ষমতার বাইরে দায়িত্ব চা’পিয়ে দেন না।’ (সূরা: বাকারা, আয়াত: ২৮৬)।

কিন্তু কোন মুসলমান যদি মহামারিতে মারা যান তবে ইসলামের মূলনীতি কী হবে?

কিৎসা বিজ্ঞানীদের মতে, করোনাভাইরাস ছোঁয়াচে হওয়ার কারণে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করলে তার গোসল, জানাজা ও দাফনে সংক্রমণ হয়ে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সুযোগ রয়েছে।

হাদিসে মহামারিতে আক্রান্ত মৃত ব্যক্তিকে শহীদ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মৃত ব্যক্তি ঈমানদার হলে সেও শহীদি মর্যাদা লাভ করবে। আর এ ব্যক্তিকে শহীদ হিসেবে মনে করে গোসল, যথাযথ নিরাপত্তা নিয়ে কম সংক্ষক লোক নিয়ে জানাজা দিয়ে দাফন করা যাবে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞ আলেমরা।

 

শায়খ আহমদ মামদুহ-এর ফতোয়া

রুল ইফতাহ আল মাসরিয়ার আমির শায়খ আহমদ মামদুহ এক ভিডিও বার্তা উল্লেখ করেছেন, গোসল করানোর চেষ্টা করতে হবে। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করে গোসল করাতে পানি স্প্রে করার মাধ্যমে তার শরীর ধুয়ে দেয়া যায় তাতেই চলবে। এ চেষ্টা করতে হবে। নতুবা তায়াম্মুম করাবে।

ইসলামের মূলনীতি

মহামারি করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তির জন্য কোনো সামাজিক কিংবা ধর্মীয় জনসমাগমে যাওয়া যেমন বৈধ নয়, তেমনি অন্য মুসলমানের ক্ষতি বা কষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা থাকে এমন মৃত ব্যক্তির গোসলে পানি স্প্রে করার মাধ্যমে তার শরীর ধুয়ে, কম সংক্ষক লোক নিয়ে জানাজা ও দাফনে কোনো বাধা নেই।

لا ضرر ولا ضرار

যারা বিনা অপরাধে মুমিন পুরুষ ও মুমিন নারীদেরকে কষ্ট দেয়, তারা মিথ্যা অপবাদ ও প্রকাশ্য পাপের বোঝা বহন করে।’ (সুরা আহজাব : আয়াত ৫৮)

ضَعِيفًا ٱلْإِنسَٰنُ وَخُلِقَ عَنكُمْۚ يُخَفِّفَ أَن ٱللَّهُ يُرِيدُ

দুর্বলভাবে মানুষকে আর সৃষ্টি করা হয়েছে তোমাদের থেকে বোঝা হালকা করতে যে আল্লাহ চান ।

আরও পড়ুন