ঢাকা, বাংলাদেশ | বুধবার | ২৮ অক্টবর | ২০২০ | ৫:১৬ pm

×

রাজনীতি

জুন ৮, ২০২০, ২:৪৫ pm

‘ক্যাসিনো খালেদ’ এর বিরুদ্ধে সাড়ে আট কোটি টাকার মানি লন্ডারিং মামলা করেছে সিআইডি

তথ্য বাংলা অনলাইন ডেস্ক
বহিষ্কার হওয়া যুবলীগ নেতা খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া

ছবি - বহিষ্কার হওয়া যুবলীগ নেতা খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া

বহিষ্কার হওয়া যুবলীগ নেতা খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া ও তার অন্যান্য সহযোগীদের বিরুদ্ধে মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর ও থাইল্যান্ডে কমপক্ষে সাড়ে ৮ কোটি টাকা মানি লন্ডারিংয়ের মামলা করা হয়েছে।

রবিবার ফৌজদারি তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) পরিদর্শক  ইব্রাহিম হোসেন বাদী হয়ে মতিঝিল থানায় মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনে মামলা দায়ের করেন।

মামলাটি দায়েরকালে সিআইডি উল্লেখ করে, উল্লিখিত পরিমাণটি তিন বছরের বিভিন্ন অ্যাকাউন্টে গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর অবৈধভাবে পাঠানো হয়েছিল।
খালেদের সহযোগী- আইয়ুব রহমান, আবু ইউনুস ও দ্বীনমজুমদার এবং কয়েকজন নামবিহীন ব্যক্তিকে এই মামলায় আসামি করা হয়েছে। তারা খালেদকে অর্থ পাচারে সহায়তা করেছিল বলে অভিযোগ রয়েছে।

র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) -৩ নগরীর ফকিরেপুল এলাকায় অবৈধ ক্যাসিনো চালানোর অভিযোগে ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যায় তার গুলশানের বাসভবন থেকে সাবেক যুবলীগ নেতাকে গ্রেপ্তার করে।

র‌্যাব  বাহিনী তার বাসা থেকে অবৈধ অস্ত্র, ইয়াবা ট্যাবলেট এবং বিপুল নগদ জব্দ করেছে। র‌্যাব তাকে ১৯ সেপ্টেম্বর গুলশান থানায় সোপর্দ করে।

গ্রেপ্তারের পর তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়।